আরো এক ইতিহাস গড়ার পথে কলকাতা,জানালেন রেলমন্ত্রী

ভারতে প্রথম মেট্রো চলাচল শুরু হয়েছিল কলকাতায়। আবারো সেই মেট্রোকে নিয়ে রেকর্ড গড়তে চলেছে তিলোত্তমা। খুব শিগগিরই সর্বপ্রথম জলে নিচে ভারতে চলতে শুরু হবে মেট্রো আর এই পরিষেবা খুব শীঘ্রই চালু হতে চলেছে।

এই সুখবর রাজ্যবাসীকে টুইট করে স্বয়ং জানালেন রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল।জলের নীচে মেট্রো রেল পরিষেবা কেমন হবে এই নিয়ে একটি ভিডিও টুইটারে শেয়ার করলেন রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল। খবর সূত্রে জানা গেছে এই মেট্রো হুগলি নদী কে অতিক্রম করে চলবে, এই নিয়ে চলছে জোড় কদমে প্রস্তুতি।

আর এই মেট্রোর জন্য একটি বিশেষ ধরনের সুরঙ্গ তৈরি করা হয়েছে এটি 520 মিটার দীর্ঘ এবং প্রায় 30 ফুট গভীর। সূত্র থেকে এটা জানতে করা গেছে যে এই মেট্রোটি কলকাতা মেট্রোর ট্রেন সল্টলেক সেক্টর ফাইভ থেকে হাওড়া ময়দান এর মধ্যে মোট 16 কিলো মিটার চলবে।

তবে পীযূষ গোয়েল কে এই নিয়ে দুই করতে দেখা যায় সেখানে তিনি লিখেছেন খুব তাড়াতাড়ি কলকাতার হুগলি নদীর তলা থেকে মেট্রো রেলের যাত্রা শুরু হতে চলেছে। আর এই পরিষেবা প্রযুক্তিগত উন্নতির দিক থেকে এক দারুন উপহার হতে চলেছে সাধারন মানুষের কাছে।

আর এই পরিষেবা চালু হলে কলকাতা বাসীরা স্বস্তি পাবে অন্যদিকে গর্বিত হবে গোটা দেশ। কলকাতা সল্টলেক সেক্টর ফাইভ থেকে সল্টলেক স্টেডিয়াম এর মধ্যে এই লাইনে করুনাময়ী,

সেন্ট্রাল পার্ক, সিটি সেন্টার এবং বেঙ্গল কেমিক্যাল মেট্রো স্টেশন গুলি রয়েছে। কলকাতা মেট্রো ভারতীয় রেলের আয় এর এই প্রোজেক্টের জন্য ব্যয় করা হয়েছে 8572 কোটি টাকা।

এই প্রোজেক্টের কাজ 2009 সাল থেকে শুরু হয়েছে।এর জন্য আর এবং ডাউন লাইনে দুটি সুরঙ্গ তৈরি করা হয়েছে যা প্রায় 1.4 কিলোমিটার দীর্ঘ।এখানে হুগলি নদী প্রায় পাঁচশ কুড়ি মিটার চওড়া এবং নিচে দিয়ে যাবে মেট্রো।

এই সুরঙ্গ তৈরি করতে রাশিয়া এবং থাইল্যান্ডের বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নেওয়া হচ্ছে।সুড়ঙ্গের জল ধরে রাখতে ব্যবহার করা হচ্ছে উন্নত মানের প্রযুক্তি ও তিনটি স্তরে সুরক্ষা কবচ তৈরি করা হয়েছে।

কারণ এই সুড়ঙ্গের মধ্যে দিয়ে প্রতি ঘণ্টায় 80 কিলোমিটার বেগে দৌড়ে যাবে মেট্রো ট্রেন।এখন এটা বললে ভুল হবে না যে সম্পত্তি কলকাতা ভারতের বিশেষ ক্ষেত্রে নিজের ঝুলিতে সম্মানের পালক গড়ে তুলেছে।এর কারণ হিসেবে প্রথমত বলা যাবে কলকাতায় নির্মাণ হয়েছে গাছ লাইবেরি যা ভারতে প্রথম। আর দ্বিতীয়তঃ বাঙালি বিজ্ঞানী চন্দ্রকান্ত এর নেতৃত্বে চাঁদে পাড়ি দিল ভারতের চন্দ্রযান 2। আর তৃতীয় বিশ্বের প্রথম শ্রীচৈতন্য মহাপ্রভু মিউজিয়াম তৈরি করা হলো কলকাতার মধ্যে। প্রভু শ্রী চৈতন্যের সংগ্রহশালা যা নির্মাণ করা হয়েছে বাগবাজারে গৌড়ীয় মিশনে এটি বিশ্বের প্রথম শ্রী চৈতন্য সংগ্রহশালা।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*