এক ধনী ব্যাক্তি ঘোষণা করলেন যে ব্যাক্তি তার কুমির চাষের পুকুরটি সাঁতরে পার হবে, তাকে তার কন্যার সাথে..

এক জন বিরাট ধনী তার বাগান, বাড়ির পেছনের পুকুরে কুমির পুষতেন। একদিন তিনি তার বাড়িতে বিশাল এক পার্টি দিলেন। নানা জায়গা থেকে বহু লোক এলো সেই পার্টিতে।

প্রচুর ম’দ্যপান আর খাওয়া দাওয়ার পরে পুরাতন কালের মহারাজদের স্টাইলে ধনী লোকটি ঘোষণা করলেন, যে সাহস করে কুমির ভর্তি পুকুরটি সাঁতরে পার হতে পারবে তাকে তিনি হয় এক কোটি টাকা দেবেন না হয় তিনি তার কাছে তার সুন্দরী কন্যাকে সম’র্পণ করবেন।

কথাটি শেষ না হতেই ঝপাং করে একটি শব্দ। দেখা গেল এক জন লোক প্রান পণে সাঁতরাচ্ছে আর তার পিছনে তিনটা কুমির তাড়া করছে। সবাই পাড় থেকে লোকটা কে অজস্র উৎসাহ জুগিয়ে চলল।

লোকটা অবশ্যই ভালই সাঁতার কাটে তার উপর প্রা’ণের মায়া। কোন মতে হাঁপাতে হাঁপাতে অক্ষত অবস্থায় অন্য পাড়ে উঠলো। ধনী লোকটি এগিয়ে এসে লোকটির হাত ধরে বললেন,

আমি বিশ্বা’স করতে পারিনি এত সাহস দেখানোর মত ক্ষমতা কারও থাকতে পারে। ইয়ং ম্যান তুমি কি চাও?আমা’র কন্যা, -না এক কোটি টাকা?

লোকটি তখনও হাঁপাচ্ছে। হাঁপাতে হাঁপাতে বলল, আমি আপনার কন্যাকেও চাইনা,আপনার এক কোটি টাকাও পেতে চাই না। আমি শুধু জানতে চাই কোন শালায় আমা’রে, ধাক্কা মা’রছে.

কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত প্রদান করুন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*