৭৩ কোটি টাকায় বিক্রি হলো কুরআনের সেই পাণ্ডুলিপি

১৫শ শতাব্দীতে মিং রাজবংশের সময়ে এক ধরণের চাইনিজ পেপারে সোনার প্রলেপে লেখা কুরআনের অনেক মূল্যবান সেই পাণ্ডুলিপিটি ৭০ লাখ পাউন্ডে বিক্রি হয়েছে। যা টাকার অংকে দাঁড়ায় ৭৩ কোটি ১৬ লাখ ৪০ হাজার।

বিশেষ ধরনের চাইনিজ পেপারে লিখিত সাড়ে ৫শ বছরের পুরনো কুরআনের দৃষ্টিনন্দন ‘তিমুরিদ কুরআন’-এর পাণ্ডুলিপিটি দেখতে যেমন অনিন্দ্য সুন্দর তেমনি আকর্ষণীয়। সুন্দর ও নিখুঁতভাবে লিখিত কুরআনের এ পাণ্ডুলিপি দেখলেই আবেগে অশ্রু ঝরবে, হৃদয়ে অন্য রকম এক শিহ’রণ জাগ্রত হবে।

গত ২৬ জুন শুক্রবার লন্ডনের ক্রিশ্চিয়াস নিলাম সেন্টারে ‘তিমুরিদ কুরআন’-এর এ পাণ্ডুলিপি বিক্রির জন্য উপস্থাপন করা হয়েছিল । দেখতে চ’মৎকার লো’ভনীয় দৃষ্টিনন্দন এ পাণ্ডুলিপিটি সেখানে নিলামে ৭০ লাখ পাউন্ডে বিক্রি হয়েছে।

নিলাম বিশেষজ্ঞরা আগেই ধারণা করেছিলেন যে, এ পাণ্ডুলিপিটি ৮০০ ডলার থেকে বিট শুরু হবে। যা ১.২ মিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে যেতে পারে। অবশেষে তা ৭০ লাখ পাউন্ড (প্রায় ৭.৩ মিলিয়ন) তথা ৭৩ কোটি ১৬ লাখ ৪০ হাজার টাকায় বিক্রি হলো।

বহু শতাব্দী ধরে কুরআনের এ পাণ্ডুলিপিটি দেখতে স্বচ্ছ ও নিখুঁত। এটির রঙ ও উজ্জ্বলতা এখন অক্ষুন্ন রয়েছে। অনন্য মাত্রায় লেখা আশ্চর্যজনক ক্যালিগ্রাফিতে সাজানো কুরআনের পুরো পাণ্ডুলিপি। বিশেষ ধরনের চীনা কাগজে লিখিত কুরআনের এই পাণ্ডুলিপির পৃষ্ঠা এবং প্রচ্ছদে স্বর্ণের কাজ করা রয়েছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*